কবিতা : ভাসে সোনাবিবির ঘর । কবি জাকিয়া রহমান (আয়ারল্যান্ড প্রবাসী)

0
74

        কবিতা : ভাসে সোনাবিবির ঘর
(সাম্প্রতিক বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে রচিত)
কবি জাকিয়া রহমান (আয়ারল্যান্ড প্রবাসী)

______________________________________________

সোনাবিবির উঠান ভরা ছিল সুখ,
ছিল শান্তি- মাটির ঘরের ছাউনিতে।
আঙ্গিনায় সুখের আলপনা- ছিলনা দুখ,
বুকে ভরা ছিল তার স্নেহ-মমতাতে।

এক কুঁড়ি ফুটফুটে আদরের মেয়ে খুকি,
মনে হয় সে মেয়ে যেন খেলার পুতুল।
আবোল তাবোল সারাদিন বকে সে যে কি-
মা মেয়ে যেন দুই সখী খেলায় ব্যাকুল।

ঘরের পাশে ছিল সবজি বাগান, সজনে
আর ছিল লাউয়ের জাংলা নিচে লাল শাক।
টানাটানির ঘর হলেও ভালোবাসা ছিল মনে,
ভরপুর ঘরটা যেন সোনা অলংকারের ঝাঁক।

মানুষটা সারা দিন খাটে ধানের ক্ষেতে,
মালিকের জমিতে আধিতে কাজ করে।
আর সোনাবিবি সবজি ফলায় বাটিতে,
তার হাতের যতনে সব কিছু লকলক বাড়ে।

সেদিন আচমকা ভাঙ্গল ঘুম, ভাসে ঘর!
ভয়ংকর জল আর জল! একি হলো!
কোথায় গেল সব! তার ভালবাসার ঘর?
এতো জলের স্রোত কোথা থেকে এলো?

খুঁজে পায়না সোনাবিবি তার ছোট্ট কুঁড়ি,
ওই দূরে দেখা যায় খাটলাটা জলে ভাসে।
মানুষটাও তো যায়না দেখা নয়ন ফাড়ি
আর ছোট্ট কুঁড়ি, কোথায়? বুক ফাটে হুতাসে।

বাঁচার আকুতি সবার, সাধ্য কার প্রাণে?
এ যে সীমাহীন জলের অযাচিত সাগর,
পায়না সাঁতরে কুল, ক্লান্ত সে- স্রোতের টানে।
ভাসে সব আর সোনাবিবির মাটির ছাউনি ঘর!