ইতালির রোমে তিন দিন ব্যাপী আনন্দ মেলা সম্পন্ন।

0
1067

 ইতালির রোমে তিন দিন ব্যাপী আনন্দ মেলা সম্পন্ন। জাকির হোসেন সুমন ব্যুরো চীফ ইউরোপ : অত্যন্ত জাঁক জমক ও বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সমিতি ইতালির আয়োজনে তিন দিন ব্যাপী গ্রীষ্মকালীন আনন্দ মেলা শেষ হয়েছে।
ইতালির রাজধানী রোমের সেন্তসেল্লের মাঠে আয়োজিত এই আনন্দমেলার প্রধান অতিথি ছিলেন দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আব্দুস সোবহান সিকদার। বেলুন উড়িয়ে ও আতোশ বাজি ফোটানোর মধ্যে দিয়ে এই মেলা টির শুভ উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রদূত।

পাশাপাশি তিনি ঐক্যবদ্ধভাবে ও বিশাল এই আয়োজনের জন্য বাংলাদেশ সমিতিকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং আগামীতেও এই ধরনের আয়োজন অব্যাহত রেখে বিদেশীদের কাছে দেশীয় সংস্কৃতি কে ছড়িয়ে আহ্বান জানান।

উদ্ভোধনী অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সমিতি ইতালির সভাপতি আফতাব বেপারী ও পরিচালনা করে সাধারণ সম্পাদক মোঃ জহিরুল আলম। এই আয়োজন অত্যন্ত সফল হয়েছে। তিন দিন ব্যাপী এই আনন্দমেলাটি দীর্ঘদিন বাঙালি কমিউনিটি স্মরণ রাখবে। এবং আগামী প্রজন্মের কাছে বাংলা কৃষ্টি ও সংস্কৃতি কে তুলে ধরার প্রয়াসে কাজ করবেন।

রোমের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা নারী পুরুষ ও শিশুরা এই মেলায় অংশ গ্রহণ করে অত্যন্ত স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে।

মেলায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সমিতির প্রথম নির্বাচিত সভাপতি কে এম লোকমান হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা মাহতাব হোসেন, ইতালি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল, সহ সভাপতি রব ফকির, হাজী মোঃ জসিমউদ্দিন, ইতালি বি এন পির সাধারণ সম্পাদক ঢালী নাসির উদ্দিন সহ বিভিন্ন সামাজিক, আঞ্চলিক, ব্যবসায়িক ও নারী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
মেলার অন্যতম আয়োজন ছিল রোমের কমিউনিটি তে অবদান স্বরূপ বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তিত্ব দের সম্মাননা প্রদান। এখানে বাংলা প্রেস ক্লাব ইটালী, বাংলাদেশ বাংকার সমিতি রোম, বাংকার ব্যবসায়ী সমিতি, বৃহত্তর নোয়াখালী বাংকার সমিতি সহ ভেনিস বাংলা গ্রুপ এর চেয়ারম্যান সাঈদ রিয়াজ কে সম্মাননা দেয়া হয়।

তিন দিন ব্যাপী এই গ্রীষ্ম কালীন আনন্দ মেলায় সাংস্কৃতিক আয়োজন টি সঞ্চালনা করেন মাহবুব প্রধান, নয়না আহমেদ ও শামিমা পপি। এখানে লন্ডন থেকে আগত নুরজাহান শিল্পী, সামস তামান্না, বলোনিয়া থেকে মানসিব, ভেনিস থেকে শাকিল সহ রোমের কাজী জাকারিয়া, তাহেরুল ইসলাম, পুতুল, আতিক হাজারী, রত্না বসাক, এবং শিশু শিল্পীরা নৃত্য পরিবেশন করে।
সঙ্গীত পরিচালনায় ছিলেন মিউজিশিয়ান সাদ শহীদ।