শিবপুর দক্ষিণ পাড়ায় জলাবদ্ধতায় গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে ৩০০টি পরিবার।

0
64

শিবপুর দক্ষিণ পাড়ায় জলাবদ্ধতায় গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে ৩০০টি পরিবার।

ব্রাহ্মণবাড়ীয়ার নবীনগর উপজেলার শিবপুর দক্ষিনপাড়ায় গত দুইদিনের টানা বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে প্রায় ৩০০টি পরিবার।দূষিত এই পানি বাড়ীতে আসায় পানিবাহিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা প্রকাশ করেছে শিবপুর দক্ষিন পাড়া বাসী।

আজ বৃহস্পতিবার(১৮/৬)সকালে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়,বাজারের পূর্বপাশ থেকে প্রায় সবটা পাড়াজুড়েই হাটু পানি জমে থাকতে দেখা যায়,যার ফলে পরিবারগুলো এখন গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে।

এলাকাবাসীর দাবী, ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় এই পানি নিস্কাশন হচ্ছে না এবং পানি জমে থাকে তাই এই দূর্দশা থেকে লাগব করার জন্য চেয়ারম্যান ও মেম্বার যেন এগিয়ে আসে।

এই ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে শিবপুর ২নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ লিটন মেম্বার বলেন,”এই পানি জমে থাকার জন্য এই পাড়ার সকলেই দায়ী কারন কমল এর বাড়ী থেকে শাহীন ভাইয়ের বাড়ী পর্যন্ত নতুন যে রাস্তা করা হয়েছে আমাদের সাথে যোগাযোগ না করেই করা হয়েছে।পরিকল্পনাহীন এই নতুন রাস্তা করায় পানি আটকে যাচ্ছে।তারপরও যেহেতু এই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে তাই ১১লক্ষ টাকার একটি প্রকল্পের ব্যবস্থা করেছি হয়ত ৮-১০দিনের ভিতরে কাজ শুরু করতে পারব।”


শিবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব শাহীন সরকারের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন,”আগে পানি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা ছিল এখন শহীদ মেম্বার বাড়ীর আশে পাশে দুইটি পুকুর ভরাট করার কারনে এই অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে।বাজার থেকে যে রাস্তাটি গিয়েছে ইতিমধ্যে সেটির মাটি নিষ্কাশনের ব্যবস্থা আমি করেছি আর ড্রেনেজ ব্যবস্থাও জরুরীভাবে করার চেষ্টা করব।”
তিনি আশে পাশের বাসীন্দাদের প্রতি অনুরুধ করে বলেন,”পানি নিষ্কাশনের জন্যে যে পাইপ দেওয়া আছে সেগুলো যেন পরিচর্যা করা হয় তাহলে হঠাৎ বৃষ্টি হলে সেখানে পানি জমে থাকবে না।”