বিপু, এ ক্যামন চলে যাওয়া !! : সিকানদার কবীর

0
50

বিপু, এ ক্যামন চলে যাওয়া !!
————————————
সিকানদার কবীর

অপার সম্ভাবনার স্বপ্ন ছিলো যার দু’চোখে, সামনে যার ছিলো জীবনের অবারিত মাঠ;একেবারেই তরুন!সারল্যের দীপ্তি চোখে মুখে। আহা,কী মায়াময় চেহারা।খুবই কী জরুরি ছিলো চলে যাওয়া এই অবেলা অসময়ে।
বিশ্বাস করা খুবই কষ্টের যে, শেখ তুহিন বিপুর পদচারণায় আর মুখরিত হবে না ঝালকাঠি আদালত প্রাংগন।আইনজীবীদের কেউ ভালোবেসে ডাক দিবে না, এই বিপু।আর কেউ তাকে দেখবে না কোনদিন।
সিনিয়রদের গাউন আর ভারি আইন বই বুকে চেপে চেম্বার, বার আর কোর্টে হন্তদন্ত হয়ে ছুটোছুটির পালাও তার শেষ।পরপারে অদৃশ্য হলে তাকে কী আর পাওয়া যায়? দেখা যায়?
কতোদিন ঝালকাঠি দেখি না। বিপুকেও আমি ঠিক চিনে উঠতে পারছি না।কোনদিন তার সাথে কথা হয়েছে কিনা তাও জানি না।তবুও সবাইর আহাজারি দেখে মনটা ভীষণ কেঁদে উঠলো,আহ, বাবা মাকে অকূলে ভাসিয়ে কার বুকের ধন চলে গেলো আজ!
এই কান্নাভেজা কন্ঠেই বলি,হে করুনাময় মহামহিম, তুমি ওকে বিনা হিসেবে জান্নাতুল ফেরদৌসে স্হান দিও।আমিন।।