কবিতা : বাম পাজঁরের বাঁকা হাড় । কবি ইব্রাহীম জামালী

0
229

“বাম পাজঁরের বাঁকা হাড়”
ইব্রাহীম জামালী
💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢💢

পঞ্চ ইন্দ্রিয়ে-র সমাহারে মনুষ্যের আকৃতির বিন্যাস
অদ্য অনাবিষ্কৃত রয়েছে তাহার ব্যাসার্ধ কিংবা ব্যাস,
সমগ্র মহাবিশ্বের নর/নারী মিলে একটি রঙ্গিন সুতো
নরে-র স্বীয় অঙ্গের বিচ্ছিন্ন অংশে নারীরা আবির্ভূত।

অবিচ্ছিন্ন দেহের দাবির পরিক্রমায় স্ত্রী লিঙ্গের সৃষ্টি
ক্ষুদ্র ইচ্ছায় মাটির দেহের প্রানে পূর্ণাঙ্গ মোহিত দৃষ্টি,
সৃষ্টিকর্তার স্বীয় মর্জিতে সব অন্তরে প্রেম প্রতিফলন
অতি বিলাসীরা প্রস্ফুটিত করেছে নারীদের আচরণ।

বিধাতাও কভু বঞ্চিত করেনি নারীকে লজ্জিতের নামে
পুরুষের সেচ্ছাচারিতাকে বিলুপ্ত করেছে প্রেমের দামে,
সমাধিকার অলঙ্করণ করে উপাধিতে ভূষিত অর্ধাঙ্গিনী
প্রণাম তাহারে অতি কারুকার্যে নারীকে গড়েছেন যিনি।

বক্ররেখার মতো আবেগী স্বভাবের অবশেষে আবিষ্কার
অহংকার বিনাশে নারী-নরে-র বাম পাঁজরের বাঁকা হাড়,
ধৈর্যের প্রাচীর ভেঙে পাষাণীরা অতীতের ইতিহাস ভুলে
অনাধিকারে ধ্বংসিলে নিরীহ নরে – র গলায় ছুঁড়ি তুলে!

পরস্পরে প্রতি বিশ্বাসী আস্থার অস্তিত্ব যেন সুখের বার্তা
জন্মিলে ত্যাগের তরে ইচ্ছে দাবিয়ে অবিরাম অগ্রযাত্রা,
স্বার্থ সন্ধানে অতিক্রান্ত পথের গোধূলিতে ভুলে জন্মনীতি
বিশ্বজুড়ে বিকাশিত হোক স্বামী/স্ত্রীর সম্পর্ক আর প্রীতি।